বুড়িচং মোকাম ইউনিয়নে বালু ও মাটি
উত্তোলনের অভিযোগে ড্রেজার জব্দ

লেখক:
প্রকাশ: ১ বছর আগে

Spread the love

নিজস্ব প্রতিবেদক।।
সোমবার দুপুরে বুড়িচং উপজেলার মোকাম ইউনিয়ন এর কেদারপুর এলাকায় কৃষি জমিতে অবৈধ ভাবে বালু ও মাটি উত্তোলনের অভিযোগে ইউপি চেয়ারম্যান সাহেব আলীর নির্দেশে ড্রেজার মেশিন জব্দ করা হয়েছে। স্থানীয় মোকাম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাহেব আলী জানান জেলার বুড়িচং উপজেলার মোকাম ইউনিয়ন এর কেদারপুর জলাশয়ের কৃষি জমিতে আবু কাউসার নামের একজনের নেতৃত্বে ড্রেজার মেশিন অবৈধ ভাবে বসিয়ে বালু ও মাটি উত্তোলন করে বিভিন্ন স্থানে ভরাটের কাজ করে আসছে। কৃষকদের অভিযোগ আবু কাউসার কিছু দিন ধরে ওই জলাশয়ে কৃষি জমিতে গভীর গর্ত করে মাটি ও বালু উত্তোলনের ফলে আশেপাশের জমির অংশ ভেঙ্গে গর্তে পড়ে ভীষণ ক্ষতি হচ্ছে কৃষকদের জমির। যার ফলে কৃষি ফসল উৎপাদন ব্যহৃত হওয়ার মারাত্মক ঝুঁকি রয়েছে বলে কৃষক ও স্থানীয় লোকজনের মতামত। সোমবার দুপুরে স্থানীয় মোকাম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাহেব আলীর নিকট এলাকার বহু কৃষক ড্রেজার মেশিনে মাটি ও বালু উত্তোলনে জমি, ফসলের ক্ষতি সাধিত হওয়ার অভিযোগ করেন। কৃষকদের অভিযোগের প্রেক্ষিতে ইউপি চেয়ারম্যান সাহেব আলী পরিষদের সদস্য, গ্রাম পুলিশকে নির্দেশ প্রদান করেন জমি থেকে ড্রেজার মেশিন জব্দ করে নিয়ে আসার জন্য। নির্দেশের সাথে সাথে ইউপি সদস্য মোঃ জাকির ও শাহ আলম ভূইয়ার গ্রাম পুলিশ কেদারপুর জমি থেকে চলন্ত ড্রেজার মেশিন দিয়ে বালু ও মাটি উত্তোলন অবস্থায় তা জব্দ করে ইউনিয়ন পরিষদে নিয়ে আসে। এবিষয়ে ইউপি চেয়ারম্যান সাহেব আলী বলেন যে মোকাম ইউনিয়নের বিভিন্ন ওয়ার্ডের জলাশয় সহ নানাহ এলাকায় অবৈধ ড্রেজার মেশিন বসিয়ে কৃষি জমি থেকে গভীর গর্ত করে মাটি উত্তোলনের ফলে ফসল ও জমির ব্যপক ক্ষতি হচ্ছে। এধরণের অভিযোগ এলাকার অসংখ্য কৃষক করে আসছে। কৃষক ও ফসল বাঁচাতে আমি ড্রেজার মেশিন জব্দ করেছি। কৃষকদের বৃহৎ স্বার্থে আমি এলাকায় এধরণের অভিযান অব্যহৃত রাখবো।

  • বুড়িচং