তিন সন্তানসহ মায়ের বিষপান, সন্তানদের মৃত্যু সংকটাপন্ন মা

লেখক: স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশ: ১০ মাস আগে

Spread the love

সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জে পারিবারিক কলহের জেরে স্বামীর ওপর অভিমান করে দুই ছেলে ও এক মেয়েসহ যমুনা খাতুন নামে এক গৃহবধূ বিষপান করেছেন। এতে ওই তিন শিশুরই মৃত্যু হয়েছে। আর গৃহবধূর অবস্থা আশঙ্কাজনক।

রোববার (২৪ সেপ্টেম্বর) সকালে জামালগঞ্জ উপজেলার ফেনারবাক ইউনিয়নের শান্তিপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

মৃতরা হলো শাহেদ (৫), তামজিদ (১৫) ও শাফিয়া আক্তার (১৫)। তাদের মা যমুনা বেগমের (৩৫) অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, প্রতিদিনের মতো গতকালও স্বামীর সঙ্গে যমুনার ঝগড়া হয়। সকালে জাহাঙ্গীর বাসা থেকে বের হয়ে যান। পরে সকালে স্ত্রী যমুনা বেগম শিশুদের ভাতের সঙ্গে ইঁদুরের বিষ মিশিয়ে তাদের খেতে দেন। তিনিও সে ভাত খান। পরে গুরুতর অসুস্থ্য হয়ে পড়লে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে সুনামগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট সদর হাসপাতালে নিয়ে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তিন শিশুকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত যমুনা বেগম বলেন, আমার স্বামী জাহাঙ্গীর প্রতিদিন আমার সঙ্গে ঝগড়া করতেন। আমাকে মারধর করতেন। টানা এক বছর আমার ওপর নির্যাতন চালিয়েছেন। গতকালও আমার স্বামী প্রচণ্ড মারধর করেছে আমায়। তাই আমি আত্মাহত্যা করার সিদান্ত নেই।

জাহাঙ্গীরের ফুফাতো ভাই মিজানুর রহমান প্রতিনিধিকে বলেন, শিশুদের চিৎকার শুনে আমরা ঘরের ভিতরে যাই। তাদের মাটিতে গড়াগড়ি করতে দেখে উদ্ধার করে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে আসি। তার মধ্যে তিন শিশু মারা গেছে মা এখনও বেঁচে আছেন।

সুনামগঞ্জ ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডা. শফিকুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। হাসপাতালে আনার আগেই ওই তিনশিশুর মৃত্যু হয়েছে। তাদের মায়ের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় সিলেটে পাঠানো হয়েছে।

জামালগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দিলীপ কুমার দাস প্রতিনিধিকে বলেন, ঘটনাটি সত্যিই দুঃখজনক। স্বামীর সঙ্গে ঝগড়া করে একজন মা কিভাবে তিনসন্তানকে বিষ খাবিয়ে মেরে ফেললেন। এ ঘটনায় ঘটনাস্থলে পুলিশ রয়েছে। আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

  • বাংলাদেশ